আইপিএলের মাঝপথে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের অধিনায়ক বদল

আইপিএলের  মরসুমের মাঝ পথে অধিনায়ক বদল হল সানরাইজার্স হায়দরাবাদের।

ওয়ার্নারের বদলে অধিনায়ক করা হল কেন উইলিয়ামসনকে।

লিগ তালিকার সব থেকে নীচে রয়েছে অরেঞ্জ আর্মি। এখনও পর্যন্ত ডেভিড ওয়ার্নাররের নেতৃত্বে ৬টি ম্যাচে খেলেছিল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। কিন্তু তার মধ্যে জয় মাত্র একটিতে। এই টানা ব্যর্থতার জেরে এ বার অধিনায়ক বদলের সিদ্ধান্ত হায়দরাবাদ টিম ম্যানেজমেন্টের।  টুইট করে এই খবর জানায় টিম হায়দরাবাদ। ।

ডেভিড ওয়ার্নার-কে অধিনায়কত্ব থেকে ছেঁটে ফেললো সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ম্যানেজমেন্ট। তার বদলে বাকি মরশুম হায়দরাবাদ-কে নেতৃত্ব দেবেন কিউয়ি অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন।

সানরাইজার্সের সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশিত অফিসিয়াল বিবৃতি-তে ম্যানেজমেন্ট পরবর্তী ম্যাচে বিদেশিদের কম্বিনেশনে কিছু পরিবর্তন আনতে চলেছেন। অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নারের প্রতি তাদের পূর্ন সম্মান রয়েছে এবং তিনি দলের জন্য যা করেছেন তার জন্য তারা কৃতজ্ঞ। বাকি মরশুমও ওয়ার্নার তাদের মাঠে এবং মাঠের বাইরে সাফল্য অর্জনে সাহায্য করবে বলেই বিশ্বাস ম্যানেজমেন্টের।

একই সঙ্গে অফ-ফর্মে থাকা ওয়ার্নারের পরিবর্তে অন্য বিদেশিকে খেলানোর ইঙ্গিত দিয়েছে সানরাইজার্স৷ উইলিয়ামসনের নেতৃত্বে সানরাইজার্স প্রথম খেলতে নামবে রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে রবিবার অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে৷ তবে এই প্রথম নয়, এর আগেও সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে নেতৃত্ব দিয়ে ছিলেন উলিয়ামসন৷ ২০১৯ মরশুমে ওয়ার্নার নির্বাসনে থাকাকালীন উইলিয়ামসনের নেতৃত্বে প্লে-অফে উঠেছিল হায়দরাবাদ৷ শেষ পর্যন্ত চার নম্বরে শেষ করেছিল তারা৷ কিন্তু নির্বাসন কাটিয়ে গত মরশুমে দলে ফিরে ফের সানরাইজার্সের নেতৃত্বের ব্যাটন ফিরে পান ওয়ার্নার

ডেভিড ওয়ার্নারের সাম্প্রতিক ফর্মটি এই মরসুমে বিশেষ কিছু হয়নি এবং তিনি ছয় ম্যাচে ১৯৩ রান করেছেন, তবে তার স্ট্রাইক রেট মাত্র ১১০.২৮। একই অবস্থা মণীশ পান্ডের ক্ষেত্রেও হয়েছে এবং তিনিও দ্রুত রান করতে ব্যর্থ হয়েছেন। ভুবনেশ্বর কুমার বোলিংয়ে পুরোপুরি ফিট নন, যদিও টি নটরাজন ইতিমধ্যে হাঁটুর চোটের কারণে পুরো মরশুমের বাইরে চলে গেছেন। হায়দরাবাদ ২০১৬ সালে আইপিএল শিরোপা জিতেছিল।

আইপিএল শুরুর থেকে পরপর জিততে থাকলেও হঠাৎই হোঁচট খেয়েছে আরসিবি-র জয়ের রথ। গত দুটি ম্যাচে হেরে গিয়েছে তারা। চেন্নাইয়ের পর হারতে হয়েছে পঞ্জাবের কাছে। আগামী সোমবার কলকাতার বিরুদ্ধে খেলা। সেই ম্যাচে দল ঘুরে দাঁড়াবে বলে আশা করছেন কোচ সাইমন কাটিচ।

তিনি বলেছেন এই দলের ক্ষমতা রয়েছে দ্রুত ঘুরে দাঁড়ানোর। কেকেআর-এর বিরুদ্ধেই হয়তো ভাল ছন্দ দেখতে পাবেন। আরসিসির ব্যাটিং অর্ডার পরিবর্তন করার্পক্ষে সওয়াল করলেন সেহবাগ।

বীরু বলেন, “বিরাট তিন নম্বরে বেশি সাফল্য পায়। তাই আমার মতে ওকে নিজের পুরনো জায়গায় ব্যাট করা উচিত। এরপর ম্যাক্সওয়েল ও ডিভিলিয়ার্স আসুক। এমন ভাবে সাজানো হলে দেবদত্তের সঙ্গে মহম্মদ আজহারউদ্দিনকে দিয়ে ওপেন করা উচিত। রজত পতিদার যথেষ্ট সুযোগ পেয়েছে। এ বার আজহারকে দেখে নেওয়া যেতেই পারে।”

ক্লিক করে পড়ুন ‘সাতসকাল’ ই-খবরের কাগজ

The post satsakal 12-05-2021 appeared first on satsakal.com.