তৃণমূল কংগ্রেস সরকার শিক্ষকদের পাশে, হাল ফিরবে শিক্ষাক্ষেত্রে

তৃণমূল কংগ্রেস সরকার ২০১১ সালে বাংলায় ক্ষমতায় আসার পর থেকেই  শিক্ষকদের উন্নতিসাধনে বিভিন্ন প্রচেষ্টা করছে।শিক্ষকদের উন্নয়নে  বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন তৃণমূল কংগ্রেস সরকার।

রাজ্য সরকার ২০১১ সালে কৃতী শিক্ষকদের জন্য শিক্ষা রত্ন পুরষ্কার এর চালু করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তিনি নিজেই প্রতি বছর এই পুরষ্কার প্রদান করেন।

আজ, শিক্ষক দিবস উপলক্ষে, আসুন আমরা রাজ্য সরকার শিক্ষকদের জন্য যে বিভিন্ন প্রকল্প ও কর্মসূচি চালু করেছে তা একবার দেখে নিই

শিক্ষক নিয়োগ – সাত বছরে ৫০৪২৬ জন প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ করা হয়েছে। সাত বছরে উচ্চ প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্কুলে ২৭৫৭২ জন শিক্ষক নিয়োগ করা হয়েছে।

শিক্ষক প্রশিক্ষণ – নিয়োগের পর প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে ৭৫৬৯১২ জন শিক্ষককে

আরও পড়ুন: স্বাস্থ্য পরিকাঠামো জোরদার করতে নয়া উদ্যোগ রাজ্যের, এবার কি তবে হাল ফিরবে?

শিক্ষা রত্ন – ২০১১ সালে ক্ষমতায় আসার পর থেকেই শিক্ষক দিবসে শিক্ষকদের সম্মাননা জ্ঞাপন করার প্রক্রিয়া চালু করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । কৃতী শিক্ষক শিক্ষিকাদের ‘শিক্ষা রত্ন’ সম্মাননা দেওয়া হয়।

স্বাস্থ্য সাথী – ২০১৭ সাল থেকে সরকার অনুমোদিত অস্থায়ী শিক্ষক, চুক্তিভিত্তিক পূর্ণ সময়ের শিক্ষক ও অশিক্ষক কর্মীদের স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের অধীনে আনা হয়েছে।

অবসরের বয়স বাড়ানো – জানুয়ারি ২০১৭ থেকে কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকদের অবসর গ্রহনের বয়স ৬০ বছর থেকে বাড়িয়ে ৬২ বছর করা হয়েছে।

বেড়াতে যাওয়ার ভাতা – বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ শিক্ষকদের বেড়াতে যাওয়ার ভাতা প্রদান করা হয়েছে।

পিতৃত্বকালীন ও মাতৃত্বকালীন ছুটি – কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকদের পিতৃত্বকালীন ছুটির ঘোষণা করা হয়েছে। কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপিকাদের তাঁদের শিশুর দেখাশোনা করার জন্য ছুটি অনুমোদন করা হয়েছে।

গ্রন্থাগার কর্মীদের শিক্ষকের মর্যাদা -সরকারি সাহায্য প্রাপ্ত কলেজগুলির লাইব্রেরিয়ান, ডেপুটি লাইব্রেরিয়ান, সহ লাইব্রেরিয়ানদের শিক্ষকের মর্যাদা দেওয়া হয়েছে। স্নাতক গবেষণাগার প্রশিক্ষক এবং সমস্ত সহকারীকে আর্থিক ও পরিষেবার সাহায্য দেওয়া হয়েছে যেমন কেরিয়ার অ্যাডভান্সমেন্ট প্রকল্প এবং ৩০০দিনের ছুটির টাকা পায়।

গাইডের কাজের অনুমোদন – ইউজিসি রেগুলেশনস ২০১৬ অনুযায়ী কলেজের অধ্যাপকদের এম.ফিল. এবং পি.এইচ.ডি. গবেষণারতদের গাইডের কাজ করার অনুমোদন।

উচ্চশিক্ষার জন্য সবেতন ছুটি – সরকার অনুমোদিত অস্থায়ী শিক্ষকদের, চুক্তিভিত্তিক শিক্ষকদের উচ্চশিক্ষার ডিগ্রী যেমন পি.এইচ.ডি. করতে সবেতন পড়ার জন্য ছুটি মঞ্জুর করা হয়েছে।

পারস্পরিক বদলি – ওয়েস্ট বেঙ্গল কলেজেস (ট্রান্সফার অফ এমপ্লয়িস) রুল ২০১৭ অনুযায়ী, সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত কলেজে শিক্ষকরা নিজেদের মধ্যে পারস্পরিক বদলি নিতে পারে।

ওয়েস্ট বেঙ্গল ইউনিভার্সিটিস অ্যান্ড কলেজেস (অ্যাডমিনিস্ট্রেশন অ্যান্ড রেগুলেশন) অ্যাক্ট, ২০১৭ – এই আইনে একগুচ্ছ সংশোধন আছে, যেমন সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত কলেজে পরিচালন সমিতির উপাদান, সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত কলেজের শিক্ষক ও অশিক্ষক কর্মীদের প্রভিডেন্ট ফান্ড রাজ্যের কোষাগারের অধীনে আনা, সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রশাসনিক বিষয়ে সমতা আনা ও সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত কলেজে শিক্ষকদের বদলির সুবিধা, এছাড়া উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলির দক্ষতা বৃদ্ধি।

The post তৃণমূল কংগ্রেস সরকার শিক্ষকদের পাশে, হাল ফিরবে শিক্ষাক্ষেত্রে appeared first on Sabuj Bangla.

ক্লিক করে পড়ুন ‘সাতসকাল’ ই-খবরের কাগজ

The post satsakal 06-05-2021 appeared first on satsakal.com.