সীমান্তে জঙ্গি ধরতে তৈরি হচ্ছে অত্যাধুনিক রেডার

 

দীর্ঘদিন যাবত সীমান্তে জঙ্গিহানায় জেরবার জম্মু–কাশ্মীর। এমনকী পাক জওয়ানদের দেশের ভিতরে গিয়ে বিএসএফ জওয়ানকে হত্যার মতো ঘটনাও ঘটেছে। তাই কাঁটাতারের বেড়ার ওপর আর ভরসা করতে নারাজ ভারত। প্রাচীর এমন হবে যা চোখে দেখা যাবে না। অথচ বেড়া পেরোলেই ধরা পড়ে যাবে ভারতের রেডারে। তখন জঙ্গিনিধনে ছুটে যাবে সবথেকে কাছের সেনাঘাঁটিতে থাকা জওয়ানরা।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রে খবর, নয়াদিল্লিতে একটি প্রতিরক্ষা সংস্থা ক্রন সিস্টেমস এই প্রযুক্তি উদ্ভাবন করেছে। যার নাম দেওয়া হয়েছে কবচ। এখন যে প্রাচীর রয়েছে তার থেকেও একটু বেশি উঁচু হবে এই লেজার ওয়াল। আগে যে লেজার ওয়াল ছিল, বিম থাকায় সেটা সহজেই চোখে পড়ত। কিন্তু এবার তৈরি হবে অদৃশ্য প্রাচীর। যা চোখে দেখা যাবে না, অনুভব করাও যাবে না এবং শত্রুদের চিহ্নিত করবে খুব সহজেই।

বিএসএফের জম্মু ফ্রন্টিয়ারের ইন্সপেক্টর জেনারেল রাকেশ শর্মা জানান, ইনফ্রারেডের ওপর ভিত্তি করে এই বিশেষ সিস্টেম বানাচ্ছে ক্রন সিস্টেমস। ভারত–পাক সীমান্তে ১৩টি নদী রয়েছে এবং অনেক প্রাচীরবিহীন ঝোপঝাড় রয়েছে। সেই জায়গাগুলিতে অনুপ্রবেশ রুখতেই এই লেজার ওয়াল তৈরি করা হয়েছে। এমনকী স্বচ্ছ জলেও কাজ করবে এই প্রাচীর। ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানের ৩০০০ কিলোমিটার সীমান্ত রয়েছে। তার মধ্যে ১৯৮ কিলোমিটার আন্তর্জাতিক সীমারেখা এবং ৭৪০ কিলোমিটার লাইন অফ কন্ট্রোল রয়েছে কাশ্মীরে। মাত্র ১ ঘন্টার মধ্যে এক কিলোমিটার এলাকায় এই লেজার ওয়াল মোতায়েন করা যাবে। তবে এই প্রযুক্তির জন্য ইলেকট্রিসিটি প্রয়োজন। সাম্বা সেক্টরে ইতিমধ্যেই পরীক্ষামূলকভাবে এই প্রযুক্তি ব্যবহার করা হচ্ছে।

The post সীমান্তে জঙ্গি ধরতে তৈরি হচ্ছে অত্যাধুনিক রেডার appeared first on Lifestyle.

ক্লিক করে পড়ুন ‘সাতসকাল’ ই-খবরের কাগজ

The post satsakal 06-05-2021 appeared first on satsakal.com.