গাড়িতেই টানা ১৩ বছর বিশ্ব ভ্রমণ

আমরা অনেকেই অনেক রকমের ট্যুর করি। কেউ দু-তিন দিনের জন্য, আবার কেউ ১০-১৫ দিনের জন্য। কেউ কেউ আবার বিদেশ ঘুরতে গিয়ে মাসখানেক কাটিয়ে আসেন। কিন্তু ১৩ বছর ধরে ভ্রমণ, এটা সম্ভব নাকি?

সম্ভব। অবিশ্বাস্য হলেও এটা সত্যি। হারমান ও ক্যানডেলারিয়া জ্যাপ নামের এক দম্পতি নিজেদের ৮৫ বছরের পুরনো গাড়িকে বাড়ি বানিয়ে একটানা ১৩ বছর বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ঘুরে বেড়িয়েছেন।

পৃথিবীতে অনেকেই আছেন যাঁদের কাছে ভ্রমণ একধরনের নেশা। তবে ভ্রমণের নেশায় একটানা ১৩ বছর কাটিয়ে দেওয়ার এই ঘটনাটি বিরল। আর এই ১৩ বছরে এই দম্পতির সংসারে এসেছে ৪ সন্তান। এরা সবাই বিভিন্ন দেশে ভ্রমণের সময়েই জন্ম নিয়েছে।

কতটা ভ্রমণপিপাসু হলে একটি পরিবার এভাবে একটানা নিজের সমাজ ছেড়ে দেশে দেশে ঘুরে বেড়াতে পারেন তা সহজেই অনুমেয়। হারমান-ক্যানডেলারিয়া দম্পতির সন্তান পাম্পা (১০) জন্ম নিয়েছে নর্থ ক্যারোলিনাতে, তেহু (৭) জন্ম নিয়েছে আর্জেন্টিনাতে, পালমা (৪) জন্ম নিয়েছে ভ্যানকোভার দ্বীপে এবং তিন বছরের উল্লাবি জন্ম নিয়েছে অস্ট্রেলিয়াতে।

আশ্চর‌্যজনক হলেও সত্যি এই দম্পতি তাঁদের ছোট্ট সন্তান নিয়ে ঘুরে বেড়িয়েছেন একের পর এক দেশে এবং জন্ম দিয়েছেন বাকি তিন সন্তানের। এই পরিবার ২ লক্ষ মাইল পথ, ৪০-এর উপরে দেশ ঘুরেছেন ১৩ বছরে। তাঁরা দেশে দেশে ঘুরে বেড়াতে গিয়ে নানান বাধার সম্মুখে পড়েছিলেন। কখনও দেখতে পান সামনে সাগর, কখনও বা নদী আবার কোথাও যাওয়ার পথ নেই, পথ আগলে দিয়েছে বিশাল পাহাড় অথবা মরুভূমি। সব পথ তাঁরা জয় করেছেন নিজেদের পন্থাতেই।

হারমান-ক্যানডেলারিয়া জুটির দেখা হয়েছিল অনেক আগে যখন হারমান ১০ বছরের এবং জ্যাপ মাত্র ৮ বছরের। সেই থেকে দুইজন বন্ধু, এখনও তাঁদের বন্ধুত্ব অটুট। এদিকে হারমান এখন একজন আইটি বিশেষজ্ঞ।

১৯৯৬ সালে বিয়ে করার পর হারমান-জ্যাপ জুটি তাঁদের বিশ্বভ্রমণ শুরু করেন ২০০০ সাল থেকে। এদিকে নিজেদের ভ্রমণ প্রসঙ্গে হারমান বলেন, আমরা ঘুরতে ভালোবাসি, তবে আমাদের মাঝে সব কিছুই আছে যা একটি তরুণ দম্পতির মাঝে থাকা দরকার। বর্তমানে আমরা ফিলিপাইনে রয়েছি।