আইনী স্বীকৃতি পেল নাগরিক সংশোধনী বিল, আমরা কোন সংস্কৃতির পথে হাঁটছি?

রাষ্ট্রপতির সম্মতিতে নাগরিক সংশোধনী বিল আইনে পরিণত হল, এই নিয়ে বেশ কয়েকটি প্রশ্ন উঠছে  

নরেন্দ্রনাথ কুলে: আইনী স্বীকৃতি পেল নাগরিক সংশোধনী বিল। গণতন্ত্রের জোরে দুটি কক্ষেই নাগরিক সংশোধনী বিল সমস্ত যুক্তি তর্কের ঊর্ধ্বে পাশ হয়ে গেল। শুধু তাই নয় রাষ্ট্রপতির অনুমোদনে তা আইনেও পরিণত হল। এর প্রতিবাদ দেশজুড়ে। বিশেষ করে পশ্চিমবঙ্গসহ উত্তর-পূর্বাঞ্চল জুড়ে।  আগুন জ্বলছে অসমে। পুলিশের গুলিতে প্রাণ হরালেন পাঁচজন। এককথায় এই বিলে মানুষ আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে। রাষ্ট্র কি মানুষের এই আতঙ্ক আশা করেছিল? নাকি রাষ্ট্র এটাই চেয়েছে।  যাই হোক এই বিলে নাগরিকত্ব সংশোধনীই বটে। ভোট দেওয়ার অধিকার ছিল এইমাত্র (ভোট দেওয়া নাগরিকের অধিকার যা সংবিধানের ৩২৬ অনুচ্ছেদে বলা আছে)। অথচ এই বিল তা কেড়ে নিতে পারে বলেই মানুষের প্রতিবাদ।

সরকার বলছে এই বিলে অনুপ্রবেশকারী চিহ্নিত করা সহজ হবে।  সরকারের কথা এ পর্যন্ত হলে, প্রতিবাদের ধরণ হয়তো অন্যরকম হতো। তা কিন্তু নয়। সরকার অনুপ্রবেশকারীদের ধর্মের ছাঁকনি দিয়ে ছাঁকতে চেয়েছে। আর সেই ছাঁকনি দিয়ে মুসলিম অনুপ্রবেশকারীদের ছেঁকে আলাদা করা হলই সরকারের মূল উদ্দেশ্য। সে কথা সরকারও জোর গলায় ব্যক্ত করেছে। বিরোধীদের কথায়, এই বিভাজনের পিছনে অনেক প্রশ্ন লুকিয়ে রেখেছে সরকার। বিরোধীরা বলছে এভাবেই বিজেপি এই দেশের ধর্মনিরপক্ষেতা ধ্বংস করতে চাইছে। অবশ্য এক বিজেপি সাংসদের কথা থেকে সেই কথাই পরিষ্কারভাবে ফুটে ওঠে। সেই সাংসদের কথায়,  মুসলিম প্রধান দেশ পাকিস্তান, আফগানিস্তান, বাংলাদেশ যখন ইসলামিক রাষ্ট্র, তাহলে হিন্দু প্রধান এই ভারতও হবে হিন্দু রাষ্ট্র।

আরও পড়ুন: দেশের নাগরিক বনাম অর্থনীতি

একটি কথা বলতে ইচ্ছে করে, মুসলিম প্রধান এই দেশগুলোর তুলনা টেনে এই দেশকে গড়ার পরিকল্পনায় প্রকৃত কি উন্নত মানসিকতার পরিচয় ঘটে? এই ধর্মীয় দেশগুলোর সঙ্গে মৌলবাদের সম্পর্ক কতটা গভীর তা আজ কারওর অজানা নয়। তাহলে হিন্দু রাষ্ট্র গঠনে  হিন্দু সংস্কৃতির পথে মৌলবাদকে মুছে দিতে পারা যাবে কি?  সংখ্যার জোর মানে গণতন্ত্রের জোর। সেই জোরে মানবাধিকার ধরে রাখতে না পারলে সেই গণতন্ত্রের আদর্শ কি সত্যি থাকে?  আর সংস্কৃতির কথা বললে বলতে হয়, উন্নত সংস্কৃতি সীমানা ভাঙে, সীমানা তৈরি করে না। তাহলে আমরা কোন সংস্কৃতির পথে হেঁটে চলেছি! আইনী স্বীকৃতি পেল নাগরিক সংশোধনী বিল

ক্লিক করে পড়ুন ‘সাতসকাল’ ই-খবরের কাগজ

The post satsakal 08-05-2021 appeared first on satsakal.com.