শীতলকুচি হত্যাকাণ্ডে বিজেপি-তৃণমূল সহ কমিশনকেও কাঠগড়ায় তুললেন অধীর

বাবু সিদ্ধান্ত (বর্ধমান): তৃণমূল আর বিজেপি দুটোই দানব। দুই দানবের সংঘর্ষে বাংলা প্রতিদিন রক্তাত হচ্ছে বলে শনিবার দাবি করলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী। পাশাপাশি এদিন কুচবিহারের শীতলকুচিতে গুলিকান্ডে ৪ জনের মৃত্যুর ঘটনার জন্য তিনি নির্বাচন কমিশন, বিজেপি ও তৃণমূল কংগ্রেসকে একসঙ্গে কাঠগড়ায় তুললেন। চতুর্থ দফার ভোটে বাংলা রক্তাক্ত হওয়ার জন্য তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপি দুই দলের বিরুদ্ধেই তীব্র ক্ষোভ উগরে দেন।

পূর্ব বর্ধমানের নাদনঘাটের নির্বাচনী জনসভার অধীররঞ্জন চৌধুরী এদিন আগাগোড়াই তৃণমূল ও বিজেপিকে কার্যত তুলোধনা করেন। এদিন তিনি শীতলকুচিতে গুলিকাণ্ডে চারজনের মৃত্যুর ঘটনা নিয়ে ক্ষোভ ব্যক্ত করে বলেন, কয়েকদিন আগেই নির্বাচন কমিশন ঘোষনা করে এই রাজ্যের নির্বাচনে কেন্দ্রীয় বাহিনী প্রয়োজনে গুলি চালাতে পারে। তারপর চতুর্থ দফার নির্বাচনে শীতলকুচিতে গুলিকাণ্ডের ঘটনা ঘটলো। এ প্রসঙ্গে অধীরবাবু দাবি করেন নির্বাচন কমিশন বাংলার পরিস্থিতি মনে হয় এখনও বুঝতে পারেনি। যে ফোর্স দেওয়া হয়েছে তা বাংলার নির্বাচনের পক্ষে যথেষ্ট নয়। অবাধ ও শান্তিপূর্ণ ভোট করানোর ব্যাপারে কমিশন অবশ্যই ব্যর্থ বলে অধীরবাবু জনসভা থেকে দাবি করেন।

পশ্চিমবাংলায় বিধানসভা নির্বাচনে হিংসা হানাহানি বেড়ে চলার জন্য অধীর চৌধুরী তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপি দুই দলকেই দায়ী করেন। অধীরবাবু বলেন, তৃণমূল আর বিজেপি দুটোই দানব। দুই দানবের মধ্যে প্রতিদিন সংঘর্ষ হচ্ছে। বাংলা রক্তাক্ত হচ্ছে।

ক্লিক করে পড়ুন ‘সাতসকাল’ ই-খবরের কাগজ

The post satsakal 06-05-2021 appeared first on satsakal.com.