প্রয়াত মৌসুমী কন্যা পায়েল

বৃহস্পতিবার রাতে না ফেরার দেশে চলে গেলেন মৌসুমী কন্যা পায়েল

প্রয়াত মৌসুমী কন্যা পায়েল। বেশ কিছুদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন তিনি। পায়েল জুভেনাইল ডায়াবিটিসের রোগী ছিলেন। ২০১৭ থেকেই তাঁর স্বাস্থের অবনতি ঘটতে থাকে। ২০১৮ সালে কোমায় চলে গিয়েছিলেন পায়েল। অবশেষে সব লড়াই শেষ করে বৃহস্পতিবার রাত দুটো নাগাদ না ফেরার দেশে চলে গেলেন মৌসুমী কন্যা। so

s0 মৌসুমী চট্টোপাধ্যায় ও জয়ন্ত মুখোপাধ্যায়ের দুই কন্যা, পায়েল ও মেঘা। পায়েলের বিয়ে হয় ডিকি সিনহার সঙ্গে। তাঁদের সম্পর্কের মধ্যে কোথাও একটা টানাপোড়েন চলছিল। যে মৌসুমি চট্টোপাধ্যায় হাইকোর্টে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন। ২০১৭ সালের এপ্রিল মাস থেকেই বেশ অসুস্থ ছিলেন পায়েলের। বেশ কয়েকবার হাসপাতালে ভর্তিও হতে হয়েছিল তাঁকে। so

অসুস্থতার পরিমাণ এতটাই বেড়ে গিয়েছিল যে ২০১৮ সালে কোমায় চলে গিয়েছিলেন তিনি। এরপরই তাঁকে বাড়ি ফিরিয়ে নিয়ে যান তাঁর স্বামী ডিকি সিনহা। যদিও তারপরেও অবস্থার কোনও রকম উন্নতি হয়নি বরং অবনতি হয়েছিল। এরপর মৌসুমী ও তাঁর পরিবার দাবি করেছিলেন, মেয়ের ফিজিওথেরাপি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। ঠিকভাবে তাঁর চিকিতসা হচ্ছে না। এরপরই বছর ঘুরতে না ঘরতেই মৃত্যু হল পায়েলের। তাঁর মৃত্যুতে গোটা পরিবারে শোকের ছায়া নেমেছে। প্রয়াত মৌসুমী কন্যা পায়েল

অসুস্থতার পরিমাণ এতটাই বেড়ে গিয়েছিল যে ২০১৮ সালে কোমায় চলে গিয়েছিলেন তিনি। এরপরই তাঁকে বাড়ি ফিরিয়ে নিয়ে যান তাঁর স্বামী ডিকি সিনহা। যদিও তারপরেও অবস্থার কোনও রকম উন্নতি হয়নি বরং অবনতি হয়েছিল। এরপর মৌসুমী ও তাঁর পরিবার দাবি করেছিলেন, মেয়ের ফিজিওথেরাপি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। ঠিকভাবে তাঁর চিকিতসা হচ্ছে না। এরপরই বছর ঘুরতে না ঘরতেই মৃত্যু হল পায়েলের। তাঁর মৃত্যুতে গোটা পরিবারে শোকের ছায়া নেমেছে

ক্লিক করে পড়ুন ‘সাতসকাল’ ই-খবরের কাগজ

The post satsakal 08-05-2021 appeared first on satsakal.com.