বাংলায় ফের তৃণমূল, আত্মপ্রত্যয়ী দলনেত্রী

গণেশ চন্দ্র (কলকাতা) : একুশের বাংলা বিধানসভা নির্বাচনে দীর্ঘ আট দফায় বৃহস্পতিবারই শেষ হয়েছে ভোটগ্রহণ। এবারের নির্বাচনে তৃণমূলের প্রধান প্রতিপক্ষ বিজেপি যে তৃণমূলের চোখে চোখ রেখে লড়াই করেছে সে কথা স্পষ্ট। স্বাভাবিকভাবেই বাংলার বিধানসভা নির্বাচনে এবারের লড়াইটা হাড্ডাহাড্ডি। কিন্তু অধিকাংশ সমীক্ষার একজিট পোল অনুযায়ী ফের একবার নীল বাড়ির কুর্সি দখল করে হ্যাট্রিক করতে চলেছে তৃণমূল। এতে উজ্জীবিত হলেও গণনার আগে প্রকাশ্যে তা দেখাতে নারাজ তৃণমূল নেত্রী। তবে, ভোটের ফলাফলের আগেই শুক্রবার দলের বিধায়কদের নিয়ে বৈঠকে করেন দলনেত্রী। প্রায় মিনিট ৪৫-এর বৈঠকে ফের বাংলায় তৃণমূলের জয়ের ব্যাপারে আত্মপ্রত্যয়ী দেখা গিয়েছে মমতাকে।

তৃণমূল নেত্রী আগেই আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন, গণনার দিন কারচুপি হতে পারে বলে। তাই ভোট শেষে দলীয় প্রার্থী এবং এজেন্টদের গণনা দিনে কী করণীয়, তা বুঝিয়ে দিয়েছেন তিনি।

শুক্রবার বৈঠকে জানতে পারা গিয়েছে প্রথমেই পোস্টাল ব্যালট গণনা নিয়ে সতর্ক করা হয়েছে দলের প্রার্থী ও এজেন্টদের। এক্ষেত্রে মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের টিপস, কাউন্টিং নিয়ে সতর্ক থাকতে হবে। ভালো করে নজরদারি চালাতে হবে। সব রটনা দূরে সরিয়ে ভোরবেলা গণনা কেন্দ্রে ঢুকে পড়তে হবে। মাঝখানে গণনার টেবিল ছেড়ে কোনও জায়গায় যাওয়া যাবে না। যেসব আসনে তৃণমূলের আসন নিশ্চিত সেখানে বিজেপি সমস্যা করতে পারে৷ ফলে সাবধান ও সতর্ক থাকুন। ফলাফল যাই হোক শেষ পর্যন্ত বসে থাকতে হবে। গণনা শুরুর আগে ফর্ম ১৭-তে ভালো করে লক্ষ্য রাখতে হবে। তারপর গণনা শুরু করার অনুমতি দিতে হবে।

এদিন তৃণমূল নেত্রীর বিশেষভাবে সতর্ক করে দিয়ে বলেন, কাউন্টিং সেন্টারে কোনও ভাবেই অন্যের দেওয়া খাবার, সিগারেট নেওয়া যাবে না। সরাসরি যোগাযোগের জন্যে দুটি হেল্প লাইন নম্বর দেওয়া থাকছে। সেখানে যোগাযোগ করতে হবে। কোনও প্রলোভনে পা দেওয়া যাবে না। মেশিন ছেড়ে যাওয়া চলবে না।

২০১৯ এর লোকসভা ভোটে উত্তরঙ্গে তৃণমূল খাতা খুলতে ব্যর্থ হয়েছিল। লোকসভার নিরিখে উত্তরবঙ্গে তৃণমূল অধিকাংশ বিধানসভাতেই পিছিয়ে। তবে নেত্রী নিজে মনে করছেন এবার উত্তরবঙ্গের অনেকগুলো আসনেই তৃণমূল ভালো ফল করবে। তাই প্রার্থী ও এজেন্টদের গণনার দিন উত্তরবঙ্গে বিশেষ গুরুত্ব দিতে বলেছেন মমতা। এছাড়া. জঙ্গলমহল অধ্যুষিত বাঁকুড়া, পুরুলিয়াতে বেশ কিছু আসনে তৃণমূল প্রথম দিকে পিছিয়ে থাকতে পারে বলে মনে করছেন খোদ তৃণমূল সুপ্রিমো। এই পরিস্থিতি হলে গণনা কেন্দ্র থেকে দুঃখ করে বেরিয়ে না এসে শেষ পর্যন্ত এজেন্টদের বসে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন দলনেত্রী। ওই আসনগুলো তৃণমূলই জিতবে বলে আশাবাদী মমতা তিনি।।

ক্লিক করে পড়ুন ‘সাতসকাল’ ই-খবরের কাগজ

The post satsakal 06-05-2021 appeared first on satsakal.com.