মাটি-মাফিয়াদের দৌরাত্ম্য ক্রমশ বেড়েই চলেছে মেদিনীপুরে

শুভ চক্রবর্তী (পশ্চিম মেদিনীপুর): পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা জুড়ে মাটি মাফিয়াদের দৌরাত্ম্য ক্রমশ বেড়েই চলেছে। কিছুদিন আগে পর্যন্ত বিভিন্ন জমির মাটি কম দামে কিনে বহু টাকা মুনাফা করত কিন্তু তাদের লোভের গ্লাস এবার পৌঁছেছে গ্রামেগঞ্জে এমনকি পৌরসভার জলাশয়গুলোতে ও। পৌর প্রশাসন এমনকি রাজ্য প্রশাসনের নজরে ও যখন জলাভূমি ভরাট করা একটি অপরাধ ঠিক সেই সময়ই সমস্ত নির্দেশকে কার্যত উড়িয়ে দিয়ে প্রকাশ্যেই চলছে পুকুর এবং জলাশয় ভরাট। পশ্চিম মেদিনীপুরে অধিকাংশ পৌর এলাকাগুলি যেন মাটি মাফিয়াদের স্বর্গরাজ্য হয়ে উঠেছে। অবলীলায় বুজিয়ে ফেলা হচ্ছে একাধিক পুকুর থেকে জলাশয়। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ এ বিষয়ে পৌরসভা উদাসীন।

এমনই এক ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়ালো পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার ক্ষীরপাই পৌর এলাকায়। অভিযোগ, ক্ষীরপাই পৌরসভায় কয়েক মাস ধরে বিভিন্ন জায়গায় মাটি মাফিয়াদের রমরমা কারবার চলছে। পৌর এলাকায় একাধিক ছোট বড় পুকুর বুঝিয়ে ফেলা হচ্ছে, ফাঁকি দেওয়া হচ্ছে সরকারি রাজস্ব। স্থানীয় মানুষদের অভিযোগ, বারবার পৌরসভার কাছে এই বিষয়টিকে নজরে আনা হলেও পুরো আইনানুগ কোন ব্যবস্থাই নেয়নি পৌর কর্তৃপক্ষ।

বৃহস্পতিবার পুকুর বোজানোর ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়ালো। এদিন স্থানীয় কন্ট্রাক্টর অসিত মল্লিক এদিন ট্রাক্টরে করে মাটি নিয়ে যাবার সময় সংবাদ মাধ্যমের ক্যামেরায় ধরা পড়ে সেই চিত্র। কিন্তু ওই প্রমোটার পুকুর বোঝানোর কোন অনুমতি দেখাতে পারেনি। উল্টে তিনি দাবি করেন বৈধভাবেই এই কাজ হচ্ছে প্রশাসন এর সমস্ত রকম অনুমতি তার আছে। এ বিষয়ে ভূমি দপ্তরের আধিকারিক সহ চন্দ্রকোনা থানার ক্ষীরপাই ফাঁড়ির পুলিশের কাছে খবরটি গেলে দ্রুত পুলিশ প্রশাসন আইনানুগ ব্যবস্থা নেন। ইতিমধ্যে একটি জেসিবি সমেত চারটি মাটি বোঝায় ট্রাক্টর আটক করেছে ক্ষীরপাই ফাঁড়ির পুলিশ। আর এই ঘটনাকে হাতিয়ার করে তৃণমুল পরিচালিত ক্ষীরপাই পৌরসভার বিরুদ্ধে তোপ দেগেছে বিজেপি নেতৃত্ব। তাদের দাবি, শুধু একটাই না ক্ষীরপাই পৌর এলাকায় বালি, মাটি মাফিয়াদের স্বর্গরাজ্য হয়ে উঠেছে। ভূমি দপ্তরের কর্মী সহ পৌর প্রশাসক এই কাজের সাথে যুক্ত।

ক্লিক করে পড়ুন ‘সাতসকাল’ ই-খবরের কাগজ

The post satsakal 06-05-2021 appeared first on satsakal.com.