বাঁদরডাক্তারেই ভরসা, বাঁকুড়ায় রোগী দেখছে বাঁদর

মলয় সিংহ, বাঁকুড়া :
আচ্ছা বাঁদর যদি ডাক্তার বাবু হয় তাহলে রোগ দেখাতে যাবেন? না কোনো গল্প নয় এ পুরো বাস্তব। কোন ডাক্তারবাবুর কাছে নয়,রোগীরা ভিড় জমিয়েছেন একটি বাঁদরের কাছে এবং বাঁদর রোগী দেখছে, ঘটনাটি যতই অবাস্তব মনে হোক না কেন সত্যি  চিত্র এটাই ।
বাঁদর ডাক্তারের ভিজিটও কম নয় , যেমন রোগ তেমন ভিজিট। টাকা নিচ্ছেন বাঁদরের মালিক সাগর। কারো কাছে ২১ টাকা তো কারো কাছে ১০০ টাকা ২০০ টাকা এমনকি ২৫০ টাকাও । এই দৃশ্য দেখা গেল বাঁকুড়া জেলার ইন্দাস ব্লকের জয়নগর গ্রামে। ওই বাঁদর ডাক্তার এবং ডাক্তার মালিকের বাড়ি নদীয়া জেলার চাপড়া থানার নবাবগঞ্জে। বাঁদরের মাধ্যমে চিকিৎসা করেই চলে তার সংসার ।
চিকিৎসাশাস্ত্রের অভূতপূর্ব আধুনিকরণের যুগেও এরকম মধ্যযুগীয় ভাঁওতাবাজির সাক্ষী থাকলো ইন্দাস ব্লকের জয়নগর গ্রামের বহু মানুষ।
অবশ্য এরকম ভাঁওতাবাজি দেশের সর্বত্রই প্রায় ঘটে চলেছে, তাতে আমরা নিজেদের যতই শিক্ষিত বলে মনে করি না কেন, যতই শিক্ষায় দীক্ষায় দেশকে অন্যান্য দেশের থেকে এগিয়ে রাখী না কেন কিছু অশিক্ষার আঁধার যে আজও জমাট এদিনের এই ঘটনা থেকে আরেকবার প্রমাণ হয়ে যায়।
বাঁদরের মালিক জানান,”বাবার আমলের বাঁদর এটা,গরীব মানুষ আমি সেরম কিছুই নেই,এই বাঁদরকে নিয়েই আমার সংসার চলে”। সরস্বতী পাত্র নামে এক বাঁদরডাক্তার কে দেখাতে আসা রোগি জানান,”ডাক্তারের কাছে গিয়েছি অনেকবার রোগ সারেনি , তাই বাঁদর ডাক্তারের কাছে এসছি এবার “।

টাচ করুন, দেখুন আপনার প্রিয় অভিনেত্রীদের অসংখ্য ফটো