পেট্রোপন্যের মূল্যবৃদ্ধি, মোষের পিঠে চড়ে মনোনয়ন জমা দিলেন প্রার্থী

অমৃতা পান্ডে (বিহার): দেশজুড়ে পেট্রোল-ডিজেলের লাগামছাড়া মূল্যবৃদ্ধি কিছুতেই নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না কেন্দ্রীয় সরকার। তার ফলে জ্বালানি থেকে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য বাড়ছে হু হু করে। বিরোধীদের প্রতিবাদ সত্ত্বেও কোনও হেলদোল নেই কেন্দ্রের। এই পরিস্থিতিতে অভিনব প্রতিবাদ করলেন বিহারের পঞ্চায়েত নির্বাচনে ভোটে দাঁড়ানো এক প্রার্থী। আজাদ আলম নামে ওই প্রার্থী মোষের পিঠে চড়ে মনোনয়ন জমা দিতে আসেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরালও হয়েছে তাঁর সেই ছবি।

বিহার পঞ্চায়েত নির্বাচনে প্রার্থীরা বেশ মজাদার পোশাক পরে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। সব প্রার্থীর সঙ্গে ছিল সমর্থকদের ভিড়। প্রার্থী কেউ এসেছেন দু’চাকা চালিয়ে। কেউ বা চার চাকায়। কোথাও আবার চালকের আসনে খোদ প্রার্থীকেই দেখা গিয়েছে। কিন্তু মোষের পিঠে চড়ে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার ঘটনা বেশ বিরল।

জানা গিয়েছে, ঘটনাটি ঘটেছে কাটিহারের হাসানগঞ্জ ব্লকের হাথিয়া দিয়ারা রামপুর পঞ্চায়েতে। পঞ্চায়েত প্রধান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আজাদ আলম। কিন্তু ভোটে লড়ার জন্য মনোনয়ন জমা দিলেন মোষের পিঠে চড়ে। যদিও পরবর্তীতে নিজের এই কাজের সাফাইও দিয়েছেন তিনি।

সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে আজাদ আলম বলেন, ”দেশে মুদ্রাস্ফীতি লাগামছাড়া। অর্থনীতিও সঙ্কটে। পেট্রল ও ডিজেলের দাম ক্রমশ উর্ধ্বমুখী। আমার চাষবাস করি। আমাদের গরু-মোষ দুই আছে। ওদের দুধও খাই। দরকার বা ইচ্ছে হলে ওদের পিঠে চেপে যেখানে খুশি আমরা যেতে পারি।”

এই ব্যাপারে নির্বাচন কমিশনার বলেন, কে কীভাবে মনোনয়ন জমা দেবে, সেটা সম্পূর্ণ তাঁর ব্যাপার। এই ব্যাপারে নির্বাচন কমিশনের করণীয় কিছুই নেই। তবে এই প্রথম নয়, এর আগে বিহারের বিধানসভা নির্বাচনের সময়েও একই কাণ্ড ঘটিয়েছিলেন বাহাদুরপুর বিধানসভা কেন্দ্রের এক নির্দল প্রার্থী।