আন্তর্জাতিক পাখি পাচারকারী গ্রেপ্তার, উদ্ধার বিরল প্রজাতির তোতা পাখি

শ‍্যাম বিশ্বাস, উওর ২৪ পরগনা।
ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে পাচার অব্যাহত কখনো সোনার বিস্কুট, কখনো রুপোর গহনা, কখনো মাছের বল, কখনো মাদকদ্রব্য, আবার কখনো মানুষ,এবার তার সঙ্গে যুক্ত হলো পশুপাখি।
 বাংলাদেশে থেকে ভারতে পাচার করার সময় এক পাচারকারীকে হাতেনাতে পাকড়াও করে বিএসএফ। ধৃত পাচারকারীর কাছথেকে উদ্ধার হয় সাতটি খাঁচাবন্দি বিরল প্রজাতির ১৪০,টি তোতা পাখি,যার বাজারমূল্য লক্ষাধিক টাকা।
আজ ভোরবেলা ১১২, নম্বর সীমান্তরক্ষী বাহিনীর জওয়ানরা সীমান্তে টহল দেয়ার সময়, বাংলাদেশের এক ব্যক্তি ভোররাতে কুয়াশাচ্ছন্নতা থাকায় এই তোতা পাখিগুলো নিয়ে ভারতে প্রবেশ করার সঙ্গে সঙ্গে বিএসএফ জওয়ানরা তাকে জিজ্ঞাসা করতেই সঠিক উত্তর দিতে না পারায় তাকে আটক করে বিএসএফ ক্যাম্পে নিয়ে আসা হয়। বিএসএফের প্রাথমিক অনুমান এই বিরল প্রজাতির পাখি গুলো নেপাল মায়ানমার হয়ে বাংলাদেশ থেকে ভারতে ঢোকার পূর্বেই আটক হয়।  এর সঙ্গে কোন আন্তর্জাতিক পাখি পাচার চক্রের যোগ আছে কিনা খতিয়ে দেখছে সীমান্তরক্ষী বাহিনী।
ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার বসিরহাট মহকুমা স্বরূপনগর থানার ভারত-বাংলাদেশ তারালী সীমান্তের ঘটনা।
উদ্ধার হওয়া পাখিগুলো তেতুলিয়া শুল্ক দফতর হাতে তুলে দেয়া হয়েছে,সেখান থেকে বসিরহাট বনদপ্তর এ হাতে তুলে দেয়া হবে। বনদপ্তর এই পাখিগুলো প্রথমে শারীরিক পরীক্ষা নিরীক্ষা করবে। তারপর সল্টলেকে বনবিতান এ নিয়ে যাবে, সেখানে কিছুদিন রাখার পরে তাদের শারীরিক পরীক্ষা করে জঙ্গলে ছেড়ে দেওয়া হবে বলে সূত্রে জানা যায়। ধৃত পাখি পাচারকারীকে স্বরূপনগর থানার পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে।

টাচ করুন, দেখুন আপনার প্রিয় অভিনেত্রীদের অসংখ্য ফটো