করোনার হানা ইন্ডিয়া ওপেনে, আক্রান্ত ৭

ইন্ডিয়ান ওপেন ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়নশিপে ভয়ঙ্কর করোনা হানা। করোনা আক্রান্ত হয়েছেন মোট সাত জন খেলোয়াড়। বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপে রুপোজয়ী শাটলার কিদাম্বি শ্রীকান্তও রয়েছেন এই দলে। তাঁরা প্রত্যেকেই প্রতিযোগিতা থেকে নাম তুলে নিতে বাধ্য হয়েছেন। বিশ্ব ব্যাডমিন্টন সংস্থা জানিয়েছে এই খবর। বাধ্যতা মূলক আরটিপিসিআর পরীক্ষায় তাঁদের রিপোর্ট পজিটিভ আসে।  তবে একসঙ্গে এত জন খেলোয়াড় সরে দাঁড়ালেও প্রতিযোগিতার সূচির কোনও পরিবর্তন হচ্ছে না। ওই খেলোয়াড়দের প্রতিপক্ষরা সরাসরি ওয়াক ওভার পেয়ে পরের রাউন্ডে চলে যাবেন। ব্যাডমিন্টন অ্যাসোসিয়েশন অফ ইন্ডিয়া জানিয়েছে, মঙ্গলবার সব খেলোয়াড়েরই আরটি-পিসিআর টেস্ট করা হয়। সেই পরীক্ষায় সাতজন ভারতীয় খেলোয়াড় করোনা সংক্রমিত বলে জানা গিয়েছে। সংশ্লিষ্ট খেলোয়াড়রা আর এই প্রতিযোগিতায় যোগ দিতে পারবেন না। ফলে যাঁরা ডাবলস খেলোয়াড় আছেন, তাঁদের সঙ্গীরাও খেলতে পারবেন না। তাঁদের ইন্ডিয়া ওপেন থেকে নাম তুলে নিতে হবে। মঙ্গলবার ইভেন্টের টেস্টিং প্রোটোকল অনুসারে খেলোয়াড়দের আরটি-পিসিআর টেস্ট করা হয়েছিল। ব্যাডমিন্টন ওয়ার্ল্ড ফেডারেশন (বিডব্লিউএফ) বৃহস্পতিবার সকালে টেস্টের রিপোর্ট প্রকাশ করে। তাতে দেখা যায় ৭ জন খেলোয়াড়ের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।
এদিকে, মিটেও মিটছে না   জকোভিচ বিতর্ক।
নোভাক জকোভিচকে কি শেষ পর্যন্ত অষ্ট্রেলিয়ান ওপেনে খেলতে দেখা যাবে? না এখনও কিছুই নিশ্চিত নয়। একদিকে বিতর্ক যেমন থামছে না, তেমনি তাঁকে নিয়ে নিত্য নতুন নাটক। টুর্নামেন্টের যে সূচি জানানো হয়েছে, সেখানে রাখা হয়েছে সার্বিয়ান তারকাকে। কিন্তু এও জানানো হয়েছে, ভিসা পেলে তবেই তিনি খেলতে পারবেন। এক সাংবাদিক বৈঠকে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘মন্ত্রী হকের মন্তব্যকে উল্লেখ করে বলতে পারি, আমাদের অবস্থানের এখনও কোনও পরিবর্তন হয়নি। এখনও ব্যক্তিগত ক্ষমতা প্রয়োগ করে ভিসা বাতিল করতে পারেন তিনি। তবে এই মুহূর্তে এর থেকে বেশি কোনও মন্তব্য করতে রাজি নই।’ অস্ট্রেলীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার পর পরিস্থিতি আরও জটিল। অস্ট্রেলীয় সরকারের সঙ্গে কোভিড স্বাস্থ্যবিধি নিয়ে মুখোমুখি অবস্থানের কারণে এই টুর্নামেন্টে তাঁর খেলা এখনো অনিশ্চিত। অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ড্রয়ে জোকোভিচকে অন্তর্ভুক্ত করা হলেও অস্ট্রেলীয় প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন বলেছেন, জোকোভিচের ভিসা নিয়ে কী করা হবে, সেটি নিয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত আসতে পারেনি সরকার।

টাচ করুন, দেখুন আপনার প্রিয় অভিনেত্রীদের অসংখ্য ফটো