আইসোলেশনে মিমি!

চারিদিকে কোরানার থাবায় একে একে স্কুল থেকে শুরু করে অফিস এমনকী শুটিংও বন্ধ হয়েছে। আর সেই কারণেই শুটিং বাতিল করে বুধবার সকালে ব্রিটেন থেকে কলকাতা বিমানবন্দরে পৌঁছন অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী, অভিনেতা জিৎ।

বিমানবন্দরে নেমে মিমি চক্রবর্তী নিজের গাড়িতে উঠে যান। তবে তার আগে এই অভিনেত্রী সংবাদমাধ্যমকে জানান, ‘আগামী ১৪ দিন বাড়ি থেকে বের হবো না। সাবধানতার জন্য আইসোলেশনে থাকব। চিকিৎসকদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলব।’

বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো ব্রিটেনেও ছড়িয়েছে করোনা ভাইরাস। ঝুঁকি নিয়েই শুটিং করেছিলেন তারা। বিমানবন্দরে প্রাথমিক পরীক্ষা করিয়েছেন মিমি। কিন্তু এখনও মিমির শরীরে করোনার কোনও লক্ষণ দেখা যায়নি। তবে তাঁর কোভিড ১৯ পরীক্ষা করানো হয়নি। নিরাপত্তার জন্য স্বেচ্ছায় আইসোলেশনে থাকবেন এই অভিনেত্রী।

ব্রিটেনের অভিজ্ঞতা জানিয়ে অভিনেতা জিৎ বলেন, ‘করোনার জন্য ব্রিটেনে কোনও সমস্যার মুখোমুখি হইনি। কিন্তু দেশের করোনা নিয়ে বর্তমান পরিস্থিতি ও টলিউডের শুটিং বাতিলের খবর পাওয়ার পর প্যাক আপ করে দেশে ফিরেছি। কারণ সবার সুরক্ষা আগে প্রয়োজন।’

বিমানবন্দরে প্রাথমিক পরীক্ষা করিয়েছেন জিৎ। তাঁর শরীরেও করোনা আক্রান্ত হওয়ার কোনও লক্ষণ পাওয়া যায়নি। আপাতত তিনি সাবধানে থাকবেন বলে জানা গিয়েছে।

দেশে ফেরার অভিজ্ঞতা জানিয়ে মিমি বলেন, ‘লন্ডনের পরিস্থিতি খুব যে খারাপ, তা নয়। সেখানে প্রায় কেউ-ই মাস্ক ব্যবহার করছেন না। তবে লন্ডন ও দুবাই এয়ারপোর্টে মানুষজন প্রায় নেই বললেই চলে। এর আগে এত খালি বিমানবন্দর দেখিনি।’

গত শুক্রবার ঝুঁকি নিয়েই ব্রিটেনের উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন মিমি। এদিন দুপুরে মিমি তার ভেরিফায়েড ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসের মাধ্যমে এ তথ্য জানান। এ অভিনেত্রী লেখেন—‘কাজের প্রতিশ্রুতি রাখতে আজ লন্ডনে যাচ্ছি। সম্ভবপর সব ধরনের সাবধানতা অবলম্বন করার চেষ্টা করছি।’

করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে ১৬৫টি দেশে। এ ভাইরাসে সারা বিশ্বে এখন পর্যন্ত ৭ হাজার ৯৮৪ জন মারা গেছেন। আর আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৯৮ হাজার ৪১২ জন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *