নাবালিকা ধর্ষণের দায়ে দুই অভিযুক্ত গ্রেফতার করলো নবদ্বীপ থানার পুলিশ

অতনু গোস্বামী (নদিয়া): পনেরো বছরের এক নাবালিকাকে ধর্ষণ করার অভিযোগে দুই যুবককে গ্রেপ্তার করলো নবদ্বীপ থানার পুলিশ। ধৃতদের নাম জাহিদ শেখ ও নূর হাসান শেখ। প্রথমজনের বাড়ি নবদ্বীপ ব্লকের মহিশুরা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায়। দ্বিতীয় জন বসবাস করে পার্শ্ববর্তী পূর্ব বর্ধমান জেলার নাদন ঘাট থানার সমুদ্রগড় পারুলডাঙ্গা এলাকায়।

সোমবার গভীর রাতে অভিযুক্তদের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে মঙ্গলবার দুপুরে ৩৬৩, ৩৭৬বি ৩২৫ ও পোকসো আইনের ছয় ধারায় মামলা রুজু করে কৃষ্ণনগর বিশেষ আদালতে পাঠায় পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা যায়, নাদন ঘাট থানা এলাকার বাসিন্দা নির্যাতিতা ওই নাবালিকা গত রবিবার মহিশুরা মাঝের চর এলাকায় এক আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলেন। সেখানে রাতের বেলায় একটি জলসার আসর বসে। আত্মীয়র সাথে জলসা দেখতে চলে যান ওই নাবালিকা। রাত আনুমানিক এগারোটা নাগাদ জলসা থেকে বাড়ি ফেরার পথে মূল অভিযুক্ত জাহিদ শেখ সহ বাকি অভিযুক্তরা জোরপূর্বক ওই নাবালিকাকে মোটরবাইকে তুলে নিয়ে যায়। এরপর ঘন্টাখানেক কেটে যাওয়ার পরেও জলসা থেকে বাড়ি না ফেরায় তাঁর সন্ধানে খোঁজখবর নিতে গিয়ে ঘটনাস্থল থেকে প্রায় দেড় কিলোমিটার দূরে রাস্তার পাশে একটি ঝোপের মধ্যে থেকে ওই নির্যাতিতা নাবালিকাকে উদ্ধার করে তাঁর আত্মীয়রা। পাশাপাশি খবর দেওয়া হয় নাবালিকার পরিবারের সদস্যদের। খবর পেয়ে তাঁর পরিবারের সদস্যরা পৌঁছে চিকিৎসার জন্য নবদ্বীপ স্টেট জেনারেল হাসপাতাল ভর্তি করে নির্যাতিতা ওই নাবালিকাকে। এরপর সোমবার সকালে নাবালিকার পরিবারের পক্ষ থেকে তিনজনের বিরুদ্ধে লিখিত আকারে ধর্ষণের অভিযোগ করা হয় নবদ্বীপ থানায়। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমে ওই দিন রাতেই জাহিদ শেখ ও নুর হাসান শেখকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ঘটনায় অভিযুক্ত অজ্ঞাত পরিচয় অপর এক ব্যক্তির খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে নবদ্বীপ থানার পুলিশ।